মঞ্চ ভেঙে পড়া নিয়ে যা বললেন ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গতকাল বলেছেন, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে আমাদের নেতার দরকার নেই, স্মার্ট কর্মী দরকার।

জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর

ছাত্রলীগ নেতাদের ভিড়ের সঙ্গে তিনি যে মঞ্চে দাঁড়িয়ে ছিলেন, সেই মঞ্চ ভেঙে পড়ার পর তিনি এ কথা বলেন।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অপরাজেয় বাংলা ভাস্কর্যের কাছে এক অনুষ্ঠানে ওবায়দুল কাদের বক্তব্য দেওয়ার সময় এ দুর্ঘটনা ঘটে। বেশ কয়েকজন আহত হওয়ার ঘটনায় কাদের অক্ষত ছিলেন।

ছাত্রলীগ নেতারা তাকে পায়ে দাঁড়াতে সাহায্য করার পর ওবায়দুল কাদের বলেন, “আমরা এই ক্যাম্পাসে এবং মধুর ক্যান্টিনে বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদ করেছিলাম। হামলায় আমরা অনেকেই আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলাম। আজ মঞ্চ ভেঙ্গে গেছে। অস্বাভাবিক কিছু নয়।”

তিনি তখন বললেন, “কিন্তু আমাকে বলতে হবে মঞ্চে এত নেতার দরকার নেই… সামনের সারিতে বসার পরিবর্তে মানুষ অনুষ্ঠানের সময় মঞ্চে ভিড় করছে। কেন?”

এরপর তিনি ছাত্রলীগকে দ্রুত কমিটি গঠন করতে বলেন। তিনি বলেন, “আমরা ছাত্রলীগের দুই শীর্ষ নেতার নাম ঘোষণা করেছি, কিন্তু পূর্ণাঙ্গ কমিটি এখনো গঠন করা হয়নি। জাতীয় নির্বাচনের আগে আমাদের অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করার কারণে কমিটিগুলো শিগগিরই গঠন করতে হবে।” .

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা মহানগরীর (উত্তর ও দক্ষিণ) বিভিন্ন ইউনিটের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এবং সাবেক নেতাকর্মীরা কর্মসূচিতে যোগ দেন। ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাদের। পরিচালনা করেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান।

ছাত্রলীগের জিএস শেখ ওয়ালী বলেন, “২০২৪ সালের আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে আমরা আওয়ামী লীগের অগ্রগামী হব এবং আমরা স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিকে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে দেব না।”

আরও পড়ুন : ময়মনসিংহে পিবিআই কর্মকর্তা সেজে প্রতারণা : প্রতারক গ্রেফতার

তিনি আরো বলেন, সন্ত্রাস, সাম্প্রদায়িকতা এবং তাদের পৃষ্ঠপোষক বিএনপির বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই করতে হবে। অনুষ্ঠানটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শুরু হয়ে শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে শেষ হয়।

শেয়ার করুন :
জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর

One thought on “মঞ্চ ভেঙে পড়া নিয়ে যা বললেন ওবায়দুল কাদের

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *