বাংলাদেশের অন্যতম সুন্দর শহর ময়মনসিংহ – রোহন আগারওয়াল

ভারতের নাগপুর, মহারাষ্ট্র থেকে বাংলাদেশ ঘুরতে এসে ময়মনসিংহ নিয়ে রোহন আগারওয়াল তার অনুভূতি প্রকাশ করলেন ময়মনসিংহ টিভিকে।

জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর

ময়মনসিংহ টিভির একটি বিশেষ সাক্ষাৎকারে তিনি ময়মনসিংহ সম্পর্কে এবং ময়মনসিংহের ইতিহাস সম্পর্কে তার অভিব্যাক্তি প্রকাশ করেন। সাক্ষাৎকারের পুরো ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন: https://fb.watch/htNzJES8nv/

রোহন আগারওয়াল বাংলা ভাষা না জানায় সাক্ষাৎকারটি তার নিজের মাতৃভাষা হিন্দিতে নেওয়া হয়। সাক্ষাৎকারের বিস্তারিত বাংলায় অনুবাদ করে দেওয়া হলো :

প্রথমেই তিনি বাংলায় সবাইকে শুভেচ্ছা জানায় এবং তারপর তার পরিচয় দেয়। ২০ বছর বয়সী রোহন আগারওয়াল ভারতের নাগপুরে বসবাস করেন। তিনি দুই বছরের বেশি সময় থেকে থেকে হেঁটে এবং লিফটে ভ্রমণ শুরু করছে এবং 15500+ কিলোমিটার পথ হেঁটে ৬৭/৬৮ দিন আগে বাংলাদেশে পৌঁছেছে। তিনি বাংলাদেশের ২১ জেলা ইতিমধ্যে ভ্রমন করেছেন। তার এই যাত্রার প্রধান উদ্দেশ্য হল পরিবেশ সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি করা।

ময়মনসিংহে কবে এসেছেন জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন :

আনুমানিক ৮ দিন আগে তিনি ময়মনসিংহ আসি। এসে ময়মনসিংহে ৩ দিন থাকি এবং তারপর নেত্রকোনা জেলার বিভিন্ন উপজেলা ভ্রমণ করতে যাই। সেখান থেকে আজকে আবার ময়মনসিংহে ফিরে আসি। এববগ আজকে জামালপুর এবং শেরপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দিচ্ছি।

কবে থেকে এই ভ্রমণ শুরু করেন বলে প্রশ্ন করা হলে জবাবে তিনি বলেন :

২৫ আগস্ট ২০২০ থেকে শুরু করেছি UP বারানসি থেকে। সেখানের রাজ্যে ভ্রমণ করে এখন বাংলাদেশে আছি। এই ভ্রমণকাল আনুমানিক ৮৪০ দিন হয়েছে এবং প্রায় 15500+ কিলোমিটার পথ হেঁটেছি।

ময়মনসিংহ সম্পর্কে তার ধারণা জানতে চাইলে তিনি বলেন :

ময়মনসিংহ এসে আমার খুব ভাল লাগছে কারন এখানকার মানুষ খুব বন্ধুসুলভ এবং অতিথি পরায়ণ। আমি ময়মনসিংহ বিভাগ ৮ দিন ধরে আছি এখানের প্রত্যেকটি জায়াগায় (নেত্রকোনা সহ) সবাই খুবি বন্ধুসুলভ আচরণ করেছে এবং অনেক সাহায্যও করেছে।এখন জামালপুর ও শেরপুর যাচ্ছি সেখানকার লোকেদের সাড়াও আমাকে আনন্দিত করেছে। বাংলাদেশ মধ্যে অন্যতম ভালো বিভাগের মধ্যে একটি হলো ময়মনসিংহ এবং এটা আমার হৃদয় থেকে বলছি।

ময়মনসিংহের কোন কোন জায়গা আপনার ভালো লেগেছে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন :

ময়মনসিংহ বিভাগের নেত্রকোনার কিছু জায়গা আমার ভালো লেগেছে,  নেত্রকোনা শহরটিও ভালো লেগেছে। খুবি বড় না আবার ছোটও না শহরটি এবং ভ্রমণ করাও অনেক সহজ বলে বেশ ভালো লেগছে। ময়মনসিংহের শশীলজ,  মুক্তাগাছা জমিদার বাড়ি,  কলমাকান্দা,  বিরিশিরি আমার অনেক ভালো লেগেছে। জমিদার বাড়ি গুলোর ইতিহাস জেনেও আমার বেশ ভালো লেগেছে। শশীলজে আমি শেষ সময়ে গিয়েছিলাম এবং আমাকে স্বাগতম করে এটাও আমার ভালো লেগছে।

ময়মনসিংহকে তার ভারতবাসীকে ঘুরে আসার জন্যে পরামর্শ দিবেন কি না তা জানতে চাইলে তিনি বলেন :

অবশ্যই সবাইকে বলবো ময়মনসিংহে আসতে,  শুধু ইন্ডিয়াকেই নয় পুরো বিশ্বকে বলবো ময়মনসিংহ আসতে। কারন ময়মনসিংহে দেখার মতো এবং পুরোনো ইতিহাস ও নিদর্শন দেখার মতো প্রচুর স্থান রয়েছে যা শুধুমাত্র এখানে এসেই উপভোগ করতে পারবেন। এছাড়াও এখানে বিভিন্ন উপজাতি যেমন গাঢ় হাজং সহ বিভিন্ন সংস্কৃতির মানুষ বসবাস করেন।

এরপর তিনি বাংলায় বলেন “আমি ময়মনসিংহ ও বাংলাদেশকে ভালোবাসি”।

আরও পড়ুন : ময়মনসিংহ জেলা বইমেলা এর শুভ উদ্বোধন

রোহন আগারওয়াল এর সাথে যুক্ত হতে চাইলে সরাসরি ফেসবুকে ম্যাসেজ করতে পারেন এই লিংকে ক্লিক করে

শেয়ার করুন :
জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর

One thought on “বাংলাদেশের অন্যতম সুন্দর শহর ময়মনসিংহ – রোহন আগারওয়াল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *