ময়মনসিংহ স্টেশনে যাত্রীকে ছুড়িকাঘাত করা আসামী গ্রেফতার

ময়মনসিংহ স্টেশনে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে রেল যাত্রী নিহত হওয়ার মূল আসামি মোহাম্মদ আলী (২৬) কে চাকুসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। আসামীর জবানবন্দী ঘটনাটির বিস্তারিত বলেন।

জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর

গত ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ তারিখ সন্ধ্যা পৌনে সাতটার সময় ঢাকাগামী  মহুয়া কমিউটারের যাত্রী গোপাল পাল(৪৬) স্ব-পরিবারে ঢাকা যাওয়ার জন্য ময়মনসিংহ স্টেশনে অপেক্ষায় ছিলেন। ঘটনার সময় প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেওয়ার জন্য রেলওয়ে ষ্টেশন এর ৫ম প্লাটফর্মে গেলে ছিনতাইকারীর কবলে পরে। পরবর্তীতে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয়ে পরিবারের লোকজনের কাছে আসলে পরিবার ও স্থানীয়দের সহায়তায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। উক্ত ঘটনার বিষয়ে মৃত গোপাল পাল এর স্ত্রী জবা রানী বিশ্বাস বাদী হয়ে এজাহার দাখিল করে।

উক্ত মামলার মুল রহস্য উদঘাটনসহ আসামী গ্রেফতারের জন্যে মাননীয় পুলিশ সুপার ময়মনসিংহ মহোদয় জেলা পুলিশকে গুরুত্ব দিয়ে প্রকৃত আসামীকে সনাক্ত সহ গ্রেফতারের জন্য নির্দেশ দিলে পরিদর্শক জনাব, মোঃ সহিদুল ইসলামের নির্দেশ মোতাবেক অভিযান পরিচালনা করতে থাকেন। মাননীয় পুলিশ সুপার ময়মনসিংহ মহোদয়ের নির্দেশ মোতাবেক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব মোঃ রায়হানুল ইসলাম (পুলিশ সুপার পদে পদোন্নপিপ্রাপ্ত), ময়মনসিংহ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল), ময়মনসিংহ এবং অফিসার ইনচার্জ কোতোয়ালী মডেল থানার সার্বিক তত্ত্বাবধানে উক্ত ঘটনার বিষয়ে বিবিধ তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করেন এবং তথ্য প্রযুক্তি ও সোর্সের মাধ্যমে ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ তারিখ বিকাল আনুমানিক তিনটার সময় পুলিশ পরিদর্শক জনাব, মোঃ সহিদুল ইসলাম বিশ্বস্ত গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন যে, মামলার ঘটনার সহিত জড়িত অজ্ঞাতনামা আসামী বর্তমানে ৫নং কালিবাড়ি রোডের আমিনুল হক শামীম এর পরিত্যক্ত বাড়ীতে ঝোপঝাড়ের ভিতর নেশা করছে। সংবাদটি পেয়ে পুলিশ পরিদর্শক মোঃ সহিদুল ইসলাম তার সঙ্গের অফিসার ও ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আসামী মোহাম্মদ আলী (২৬) কে নেশা করা অবস্থায় গ্রেফতার করেন। আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে গত ২১ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা ০৬:৪৫ মিনিটে ময়মনসিংহ স্টেশনে সংঘটিত হত্যাকান্ডের ঘটনার কথা স্বীকার করে এবং হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত হোল্ডিং চাকু ৫ নং কালিবাড়ি রোডে অবস্থিত আমিনুল হক শামীম এর পরিত্যক্ত বাড়ীর ভিতর ঝোঁপঝাড়ের ভিতর থেকে আসামীর সেটি দেখিয়ে সনাক্ত করলে তা উদ্ধার করা হয়।আসামীর আসামী মোহাম্মদ আলী বিরুদ্ধে মাদক, অস্ত্র, ডাকাতির প্রস্তুতি এবং চুরিসহ সর্বমোট ৫ টি মামলা রয়েছে।

কি ঘটেছিল সেদিন? খবরটি পরতে ক্লিক করুন >> ময়মনসিংহ রেলস্টেশনে ছিনতাইকারীর হাতে ট্রেনযাত্রী খুন

আসামী আরোও জানায় গত ২১ তারিখ সন্ধ্যার সময় নিহত গোপাল পাল(৪৬) ট্রেন ছাড়ার পূর্বে প্রশ্রাব করতে রেলস্টেশনের ৫নং রেললাইনে রাখা বগির দক্ষিনে ৬নং রেললাইনের পাশে ফাঁকা স্থানে গেলে উক্ত আসামী নিহত গোপাল পালকে ঝাপটে ধরে তার কাছে থাকা নগদ টাকা ও মোবাইল নেওয়ার জন্য চেষ্টা করে। একপর্যায়ে নিহত গোপাল পাল তার কাছে থাকা ১৫,০০০/-(পনের হাজার) টাকা দিলেও আসামী তার মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। নিহত গোপাল পাল মোবাইল ফোন দিতে বাধা প্রদান করে। একপর্যায়ে আসামী মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য তার বুকে আসামীর হাতে থাকা হোল্ডিং চাকু দ্বারা স্ব-জোরে পাড় মেরে আসামী দ্রুত পালায়ন করে। নিহত গোপাল পাল রক্তাক্ত গুরুতর অবস্থায় ০৩নং প্লাটফর্মে চলে আসে। তখন প্লাটফর্মে থাকা লোকজন, তার স্ত্রী ও রেলওয়ে পুলিশের সহায়তায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়া গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষনা করেন।

শেয়ার করুন :
জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *